আদালতের নির্দেশে সোহেলের মরদেহ ফিরে পেলেন বাবা মা

শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ০১:১২ পূর্বাহ্ন

News Headline :
কয়রায় পানিবন্দি লক্ষাধিক মানুষের খাদ্য ও বিশুদ্ধ পানির সংকট, পানিবাহিত রোগের প্রাদুর্ভাব বগুড়ায় নিখোঁজ রফিকুলের ১১ মাস পর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার গ্রেফতার ৪ শরণখোলায় সুন্দরবন থেকে লোকালয়ে আসা একটি হরিন উদ্ধার আওয়ামী লীগের ওয়েবসাইটে এমপি মুকুলের ত্রান বিতরন কার্যক্রম বোরহানউদ্দিন প্রশাসনের মানবতায় ঠাই পেলো শিশু সন্তানসহ মা নড়াইলের লোহাগড়ায় করোনা উপসর্গ নিয়ে এক যুবকের মৃত্যু থানায় ঢুকে পুলিশকে লাঞ্চিত করেছে আসামীর পিতা বগুড়ায় স্পিরিট পানে দুই বন্ধুর মৃত্যু বগুড়া সদরে করোনা রোগী সবচেয়ে বেশি ঘুর্ণিঝড় আম্পানে মোংলায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা

আদালতের নির্দেশে সোহেলের মরদেহ ফিরে পেলেন বাবা মা

বরগুনা প্রতিনিধি:

বরগুনায় আদালতের নির্দেশে কবর থেকে সোহেল নামে এক যুবকের মরদেহ উত্তোলন করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইয়ানুর রহমান। সোমবার (২১ অক্টোবর) কাকচিড়া ইউনিয়নের রুপধন গ্রামের একটি কবর থেকে মরদেহটি উত্তোলন করা হয়। জানা গেছে, গত ১০ আগস্ট বরগুনার বিষখালী নদী থেকে হাত পা বাঁধা মস্তকবিহীন একটি মরদেহ উদ্ধার করে পাথরঘাটা থানা পুলিশ। বিষয়টি বরগুনা সদর থানাসহ জেলার সব থানাগুলোতে অবহিত করা হয়। পরে পাথরঘাটার কাকচিড়া ইউনিয়নের রুপধন গ্রামের ফারুক আকন নামে নিখোঁজ এক ব্যক্তির পরিচয় নিশ্চিত করে স্বজনরা দাফন করে মরদেহটি। পাথরঘাটার রুপধন গ্রামের ফারুক আকন নামে একজন নিখোঁজ হলে ফারুকের বড় ভাইয়ের স্ত্রী পাথরঘাটা থানায় গত ৩০ জুলাই সাধারণ ডায়েরি করেন। অপরদিকে বরগুনা সদর উপজেলার ১ নম্বর বদরখালী ইউনিয়নের কাটাখালী গ্রামের আব্দুর রহিম খানের ছেলে সোহেল খান নিখোঁজ হলে (১ আগস্ট) বরগুনা সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়। এদিকে ওই মরদেহটির ডিএনএ টেস্ট করে জানা যায় সেটি সদর উপজেলার বদরখালী ইউনিয়নের কাটাখালি গ্রামের রহিম খানের ছেলে সোহেল খানের। ডিএনএ টেস্টের রিপোর্ট আদালতে জমা দেওয়া হলে আদালত জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দেয় মরদেহটি উত্তোলন করে সোহেলের বাবা আব্দুর রহিম খানের কাছে হস্তান্তরের জন্য। বরগুনা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইয়ানুর রহমান জানান, আদালতের নির্দেশে সোহেলের মরদেহ কবর থেকে উত্তোলন করে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। নিহত সোহেলের মা-বাবার বলেন, যেদিন মরদেহটি উদ্ধার করা হয়েছিল সেদিন বরগুনা সদর থানার পুলিশ যদি তাদের ডেকে মরদেহ শনাক্ত করার জন্য বলতো তাহলে এ দুর্ভোগ পোহাতে হতো না। সোহেলের হত্যাকারীদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন তারা।

Please Share This Post in Your Social Media










© AMS Media Limited
Developed by: AMS IT BD