“জাতির পিতার প্রতিকৃতি আইন” কার্যকর করায় শুভেচ্ছা জানালেন সোহেল সানি

“জাতির পিতার প্রতিকৃতি আইন” কার্যকর করায় শুভেচ্ছা জানালেন সোহেল সানি

সোহেল সানি:
প্রতিষ্ঠার ছাব্বিশ বছর পর “জাতির পিতার প্রতিকৃতি আইন” কার্যকর করলো ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি- ডিআরইউ’র নবনির্বাচিত কার্যনির্বাহী পরিষদ। কমিটির সভাপতি নজরুল ইসলাম মিঠু দায়িত্বগ্রহণের পরপরই বাংলাদেশের সংবিধানের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে জাতির পিতা প্রতিকৃতি আইন অনুযায়ী কমিটির সভায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি প্রদর্শনের প্রস্তাব করেন। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ডাঃ নুরুল ইসলাম হাসিব প্রস্তাব সমর্থন করেন।

ডিআরইউর সহসভাপতি ওসমান গণি বাবুল বিরোধিতা করে হৈচৈ শুরু করতে চাইলেও সর্বসম্মতিক্রমে প্রস্তাবটি পাস হয়ে যায়।

ডিআরইউ নেতৃবৃন্দকে অশেষ অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা এই জন্য যে, তাঁরা রাষ্ট্রের রক্ষাকবজ সংবিধানের প্রতি সর্বপ্রকার আস্থা ও আনুগত্য প্রদর্শন করলেন। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা ও বঙ্গবন্ধু যে এক ও অভিন্নসত্তা তা এ মহৎ কার্যটি সম্পাদনের মাধ্যমে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি সর্বমহলকে জানান দিলো। আমার আড়াই যুগের অকৃত্রিম বন্ধু, সাংবাদিকতা ও এককালীন রাজনৈতিক সহযোদ্ধা নজরুল ইসলাম মিঠু কথা ও কাজের মধ্যে অপূর্ব মিলন ঘটালন। এ জন্য তাকে মুজিবীয় ভালোবাসা। কেননা সে আমার হাতে হাত রেখে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছিল যে, “দোস্ত আমি সভাপতি নির্বাচিত হলে ডিআরইউ জাতির পিতা প্রতিকৃতি ধারণ করবে, বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু প্রশ্নে কোনো আপোষ করবে না”। বন্ধু তার কথা রেখেছেন।

ছবি নামানোর জন্য কেউ কেউ দিবাস্বপ্ন দেখার কথা ভাবতে পারে। এরকম গুঞ্জনও শুনছিলাম। এ নিয়ে ডিআরইউ চত্বরে হৈচৈ শুরু করেছিল কেউ কেউ। আমিও অগ্নিমূর্তি ধারণ করে প্রকাশ্যে ঘোষণা করেছি – বঙ্গবন্ধুর প্রশ্নে জীবন দিবো – কিন্তু কেউ জাতির পিতার ছবিতে হাত দিলে ওই হাতই গুড়িয়ে দেয়া হবে। সভাপতি ও সাধারণের সম্পাদকের আপ্রাণ চেষ্টায় পরিস্থিতি স্বাভাবিকভাবে নিয়ে আমি শান্ত হয়েছি। যাহোক সকল ভোটারকেও শুভেচ্ছা, কেননা তাঁরা তাঁদের মূল্যবান ভোট দিয়ে মিঠু-হাসিবকে বিজয়ী করেছেন বলেই জাতির পিতাকে আমরা মাথায় ওপর রাখতে পেরেছি। পালন করা গেছে সাংবিধানিকভাবে নাগরিক দায়িত্ব।

লেখা: সোহেল সানি, সাংবাদিক, কলামিস্ট, ইতিহাসবিদ ও গবেষক

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© dhakaobserver.com | 2022
কারিগরি সহায়তা: Next Tech