সর্ব ইউরোপ আওয়ামী লীগের সভাপতির গোপনীয় তথ্য ফাঁস, প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আর্কষন

মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৮:২১ অপরাহ্ন

News Headline :
কুড়িগ্রামে আগাম শীতে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ এর আশংকা পঞ্চগড়ের কালীগঞ্জে শিক্ষক নিয়োগে অনিয়ম ও দূর্নীতি অভিযোগ, আদালতে মামলা কয়রায় পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন আওয়ামীলীগ নেতা বাহারুল ইসলাম  ত্রিশালের পৌর পূজামন্ডপ পরিদর্শনে ছাত্রলীগ সভাপতি  যশোরে গলাকেটে ব্যবসায়ীকে হত্যা ভৈরব নদী থেকে উদ্ধার কুড়িগ্রামে বলাৎকারের ঘটনায়  অভিযোগ করায় বাড়িতে হামলা কুড়িগ্রামে জেলা পর্যায়ে গোদরোগ নিমুর্লে সামাজিক উদ্বুদ্ধকরণ সভা অনুষ্ঠিত কয়রায় সাংবাদিককে প্রাণনাশের হুমকি, থানায় জিডি ত্রিশালে স্বেচ্ছাসেবক লীগ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দকে ফুল দিয়ে বরণ করেন এমপি মাদানী কুড়িগ্রামে পুঁজায় নতুন পোষাক পেল  শতাধিক হরিজন শিশু

সর্ব ইউরোপ আওয়ামী লীগের সভাপতির গোপনীয় তথ্য ফাঁস, প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আর্কষন

ইউরোপ প্রতিনিধি:

অস্টিয়া যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বাবু মিয়া জসিম সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার নিজস্ব ফেসবুকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আর্কষন করে এটি স্ট্যাটাস দেন। নিম্মে হুবুহু তার ফেসবুকে বক্তব্যটি তুলে ধরা হলো। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। ইতিহাস কাউকে ক্ষমা করে না। ইউরোপের মাটিতে অস্ট্রিয়া ভিয়েনা শহরে যখন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জননেত্রী শেখ হাসিনার আলোকচিত্রকে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে অবমাননা করেছেন, তখন তো জনাব এম নজরুল ইসলাম ও বাংলাদেশ সাবেক জামাতের নেতা, বর্তমান অস্ট্রিয়া আওয়ামী লীগের সম্মানিত সভাপতি জনাব খন্দকার হাফিজুর রহমান নাসিম, অস্ট্রিয়া বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য বর্তমান আওয়ামী লীগের সম্মানিত সাধারণ সম্পাদক জনাব সাইফুল ইসলাম কবির, অস্ট্রিয়া জাতীয় পাটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য, বর্তমান অস্ট্রিয়া আওয়ামী লীগের সহসভাপতি জনাব আক্তার হোসেন, এই নেতাদের আওয়ামী লীগের সেই দূর সময় তো কোন প্রতিবাদ করতে দেখিনাই! এম নজরুল ইসলাম সাহেব যাকে যুবলীগের আহবায়ক বানিয়েছেন সেই নয়ন হোসেনের ছোটভাই একজন জামাতি ইসলামের ক্যাডার, এখন মার্ডার কেইসে জেলখানায় আছে, পরে আমি খবর লাগিয়ে দেখলাম, ওদের গুষ্টিতে কেউ আওয়ামিলীগ করেনাই সব জামাত বিএনপি। এবং এম নজরুল ইসলাম সাহেব অস্ট্রিয়াতে একজন সাজাপাপ্ত আসামি, উনি প্রতি মাসে একবার করে জেলে গেলে ১৭ শ ইউরো মাপ পায়, এইটাই বাস্তব সত্য আর একজন সাজাপ্রাপ্ত আসামি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পাসে বসতে পারবেনা, এইটাই বাস্তবতা। আমি যদি মিথ্যে বলে থাকি, তাহলে আমার নামে মানহানি কেইস করতে বলুন প্লিজ। ইয়াসিম মিয়া বাবু, প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অস্ট্রিয়া আওয়ামী যুবলীগ।

Please Share This Post in Your Social Media











© AMS Media Limited
Developed by: AMS IT BD