ভোলায় সামাজিক নিরাপত্তা সেবার মান উন্নয়নে নাগরিক সংলাপ অনুষ্ঠিত

মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১, ০৯:৫০ অপরাহ্ন

News Headline :
ভোলায় জমি নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে বৃদ্ধ নিহত ভোলায় যুবদলের বিক্ষোভ মিছিল ভোলা জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা ভোলায় সামাজিক নিরাপত্তা সেবার মান উন্নয়নে নাগরিক সংলাপ অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ও আজকের প্রাপ্তি’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত পঞ্চগড়ে অপহরণের ৫ দিন পর কলেজছাত্রের মরদেহ উদ্ধার, ২ জন গ্রেফতার  ঢাকা কলেজে ছাত্রদলের কমিটি নিয়ে নেতা-কর্মীদের ক্ষোভ   ভোলার আদালতে যুগান্তকারী রায়। সাজাপ্রাপ্ত আসামি কারাগারে নয়, কিছু শর্তে থাকবেন বাড়িতে মোংলা পৌর নির্বাচনে আ.লীগ মনোনিত প্রার্থীদের ভোট দিন- কেসিসি মেয়র পঞ্চগড়ে মানবাধিকার সপ্তাহের পুরস্কার বিতরণ ও সমাপনী অনুষ্ঠান 

ভোলায় সামাজিক নিরাপত্তা সেবার মান উন্নয়নে নাগরিক সংলাপ অনুষ্ঠিত

ইয়াছিনুল ঈমন , ভোলা প্রতিনিধি।

ভোলা সদর উপজেলা নাগরিক ফোরামের উদ্যোগে কোস্ট ট্রাস্ট, সিইপিআই প্রকল্পের সহযোগিতায় অদ্য ১২ জানুয়ারি ২০২১ ইং সকাল ১১.০০ টায় উপজেলা পরিষদ হল রুমে “সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির সুষ্ঠু বাস্তবায়নে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে প্রকৃত হত-দরিদ্রদের তালিকা করুন” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নাগরিক সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সংলাপে সভাপতিত্ব করেন ভোলা সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জনাব আলহাজ¦ মোঃ ইউনুছ। সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ভোলা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব মোঃ মিজানুর রহমান। উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা জনাব চামেলী বেগম, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা জনাব মোঃ দেলোয়ার হোসেন ও উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা জনাব মোঃ আসাদুজ্জামান, ভোলা সদর উপজেলা নাগরিক ফোরামের সভাপতি জনাব মোকাম্মেল হক মিলন, উপজেলা ও ইউনিয়ন নাগরিক ফোরামের সদস্যগণ, বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আগত নাগরিক সমাজ প্রতিনিধি, শিক্ষকগণ, প্রকল্পের ফাইন্যান্স অফিসার মোঃ শীছ খান শাওন ও প্রজেক্ট অফিসার মোঃ সেলিম মিয়া এবং গণমাধ্যম কর্মীসহ মোট ৩০ (ত্রিশ) জন অংশগ্রহণ করেন। সভা সঞ্চালনা করেন প্রকল্প সমন্বয়কারী এস. এম তাহাজ্জুদ হোসেন এবং সার্বিক দায়িত্ব পালন করেন প্রকল্পের মনিটরিং ও ইভালুয়েশন অফিসার মোঃ মনিরুজজামান।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, কোস্ট ট্রাস্ট সর্বদা স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতামূলক কাজ করে থাকে। সরকার দেশের দারিদ্র্য ও বৈষম্য হ্রাসে এবং জনসাধারণের জীবনমান উন্নয়নে দৃঢ় অঙ্গীকারবদ্ধ। সামাজিক নিরাপত্তা সুবিধা পাওয়ার জন্য উপযুক্ত হওয়া সত্ত্বেও না পাওয়া এবং উপযুক্ত না হওয়া সত্ত্বেও সুবিধার আওতায় থাকা এমন উপকারভোগীদের কোন তথ্য পাওয়া গেলে অভিযোগের ভিত্তিতে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। নাগরিক ফোরামের সমন্বয়ে দরিদ্রদের যে তালিকা সম্পন্ন করা হয়েছে তা অগ্রাধিকারভিত্তিক উপকারভোগী নির্বাচন প্রক্রিয়া অনুসরন করার বিষয়ে সদয় দৃস্টি রাখবেন। কোস্ট ট্রাস্টের কাজে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত এবং ভবিষ্যতে এই ধরনের কাজে আমাদের সহযোগিতা অব্যহত থাকবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জনাব আলহাজ¦ মোঃ ইউনুছ বলেন, অগ্রাধিকারভিত্তিক উপকারভোগী বাছাই প্রক্রিয়া অনুসরন ও অভিযোগ গ্রহণ প্রক্রিয়া নিশ্চিত করা, কার্যকর বাছাই কমিটি ও মনিটরিং প্রক্রিয়া জোরদার করা, উপকারভোগীদের স্বক্ষমতা বাড়াতে বিভিন্ন প্রশিক্ষনের আয়োজন করবো। তিনি আরো বলেন, আমরা ইতোমধ্যে ভোলা সদর উপজেলাকে শতভাগ ভাতার আওতায় নিয়ে আসতে সক্ষম হয়েছি এবং একজনের ভাতা অন্যজনের গ্রহণ করার কোন সুযোগ নেই। আপনাদের আন্তরিক সহযোগিতা ও প্রচেষ্টা আমাদের কাজে গতিশীলতা আনবে বলে আমার বিশ^াস। সভায় অংশগ্রহণকারী সকলের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে সংলাপের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।
সামাজিক নিরাপত্তা সেবার চাহিদা অংশ এবং সরবরাহ অংশের মধ্যকার পার্থক্য নিরসনে সেতু বন্ধন তৈরী করা এবং প্রতিবন্ধকতাসমূহ উত্তরনের মাধ্যমে সামাজিক নিরাপত্তা সেবার মান উন্নয়নে নাগরিক সমাজের সুনির্দিষ্ট মতামত ও সুপারিশ সমূহ উপস্থাপন করেন নাগরিক ফোরামের সভাপতি জনাব মোকাম্মেল হক মিলন।
উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা জনাব মোঃ আসাদুজ্জামান বলেন, সরকারের নীলিমালা পরিবর্তন করা আমাদের পক্ষে সম্ভব না। কেউ যদি একাধিক সুবিধার আওতায় থাকে তাহলে সংশ্লিষ্ঠ ইউপিতে যোগাযোগ করার জন্য বলা হয়। আমরা প্রায় ২৫০০০ জেলেদের তালিকা যাচাই বাচাই করে ১৭০০০ করেছি। আমরা মাত্র ৪০০০ জেলেদের প্রশিক্ষণ দিতে পারবো। জেলেদের নিরাপত্তার জন্য লাইফ জ্যাকেট প্রদান করা শুরু হয়েছে এবং ক্রমান্বয়ে সকলেই এই সুবিধার আওতায় আসবে।
উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা জনাব মোঃ দেলোয়ার হোসেন বলেন, স্বচ্ছতা আনয়নে আমরা এই অর্থ বছর থেকে উপকারভোগীদের হাতে হাতে কার্ড প্রদান করবো। উপকারভোগীদের ভাতার তালিকা সংশ্লিষ্ঠ ইউনিয়ন পরিষদের নোটিশ বোর্ডে টাঙ্গিয়ে রাখার জন্য বলা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, প্রকৃত উপকারভোগী যদি সেবার আওতায় না আসে তাহলে আমার সাথে যোগাযোগ করবেন আমি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।
উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা জনাব চামেলী বেগম বলেন, সরকারি সেবা সুষ্ঠুভাবে বণ্টন করতে হতদরিদ্রদের তালিকা করে যাচাই-বাচাই এর মাধ্যমে উপকারভোগীদের অন্তর্ভুক্ত করা হবে। প্রকৃত উপকারভোগীর তালিকা করে সেবা প্রাপ্তির জন্য সুপারিশ করা হলে আমরা অবশ্যই গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করবো। ভিজিডি সেবার উপকারভোগীদের’কে সঞ্চয়কৃত টাকা দিয়ে বিভিন্ন আয়বর্ধনকমূলক কাজে উৎসাহিত করণে প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা করা হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

Please Share This Post in Your Social Media











© AMS Media Limited
Developed by: AMS IT BD