ইদ্রিস ফরাজী ও হাসান ইকবাল বহিষ্কার

শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ০২:০৭ পূর্বাহ্ন

News Headline :
কয়রায় পানিবন্দি লক্ষাধিক মানুষের খাদ্য ও বিশুদ্ধ পানির সংকট, পানিবাহিত রোগের প্রাদুর্ভাব বগুড়ায় নিখোঁজ রফিকুলের ১১ মাস পর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার গ্রেফতার ৪ শরণখোলায় সুন্দরবন থেকে লোকালয়ে আসা একটি হরিন উদ্ধার আওয়ামী লীগের ওয়েবসাইটে এমপি মুকুলের ত্রান বিতরন কার্যক্রম বোরহানউদ্দিন প্রশাসনের মানবতায় ঠাই পেলো শিশু সন্তানসহ মা নড়াইলের লোহাগড়ায় করোনা উপসর্গ নিয়ে এক যুবকের মৃত্যু থানায় ঢুকে পুলিশকে লাঞ্চিত করেছে আসামীর পিতা বগুড়ায় স্পিরিট পানে দুই বন্ধুর মৃত্যু বগুড়া সদরে করোনা রোগী সবচেয়ে বেশি ঘুর্ণিঝড় আম্পানে মোংলায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা

ইদ্রিস ফরাজী ও হাসান ইকবাল বহিষ্কার

ইতালী প্রতিনিধি:

ইতালী আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ইদ্রিস ফরাজী ও সাবেক সাধারন সম্পাদক হাসান ইকবালকে বহিস্কার করেছে ইতালী আওয়ামী লীগের নব গঠিত কার্যকরী পরিষদ। আজ ১২ অক্টোবর সংগঠনের সভাপতি জনাব জাহাঙ্গীর ফরাজী ও সাধারন সম্পাদক এম এ রব মন্টিুর বরাত দিয়ে দপ্তর সম্পাদক জি আর মানিকের স্বাক্ষর সম্বলিত এক প্রেস বিজ্ঞতিতে তাদের এ বহিস্কারাদেশ প্রচার করা হয় গণমাধ্যমে। বিজ্ঞপ্তিতে সু-নির্দিষ্ট কতিপয় অভিযোগ উল্লেখ করে তাদের বিরুদ্ধে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইতালি আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। তারা আরো জানান খুব শিঘ্রই সংবাদ মাধ্যমকে আরো বিস্তারিত অবহিত করা হবে। বিজ্ঞপ্তিটি পাঠকের জন্য সংযুক্ত করা হলো। তারিখঃ ১২/১০/২০১৯ সুত্রঃ ইতালী আওয়ামী লীগ/বহিস্কার বরাবর, মোঃ ইদ্রিস ফরাজী/হাসান ইকবাল যথাক্রমে সাবেক সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক বিষয়ঃ দল থেকে বহিস্কার প্রসঙ্গে জনাব, আপনারা অবগত আছেন গত ২৯সেপ্টেম্বর ২০১৯খৃঃ, রবিবার, ইতালীর রাজধানী রোমের তরপিনাত্তারাস্থ পি.সি.আই হলে ইতালী আওয়ামী লীগ কর্তৃক আয়োজিত সাধারন সভায় ইতালী আওয়ামী লীগের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি সুনির্দিষ্ট অভিযোগের (১-১২) ভিত্তিতে বিলুপ্ত ঘোষনা করে কার্যকরী পরিষদের সদস্যদের সর্বসম্মতিক্রমে জনাব জাহাঙ্গীর ফরাজীকে সভাপতি ও জনাব এম এ রব মিন্টুকে সাধারন সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত করা হয়। কিন্তু পরিতাপের বিষয় আপনারা সংগঠনের সিদ্ধান্ত অমান্য করে বিচ্ছিন্ন ভাবে সংগঠন বিরোধী কর্মকান্ড করে যাচ্ছেন, যা সম্পূর্ণ সংগঠন পরিপন্থী ও বিচার্য বিষয়। এছাড়াও জামাত বিএনপি সংশ্লিষ্ট কতিপয় ব্যক্তি আপনাদের সহযোগী হিসেবে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী কর্মকান্ডে লিপ্ত আছেন যা আওয়ামী লীগের সংগঠন ও গঠনতন্ত্র পরিপন্থী। এমতাবস্থায় গঠনতন্ত্র ও সংগঠনের শৃঙ্খলা রক্ষার্থে সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত অতীব জরুরী। আপনাদের শিষ্টাচার বর্হিভুত আচরন, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ, মুক্তিযদ্ধের চেতানা বিরোধিদের সাথে আঁতাত, দলের নীতি ও আদর্শ বিরোধী কর্মকান্ড, দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও সংগঠন ও অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টির সুনির্দষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে ইতালী আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর ফরাজী ও সাধারন সম্পাদক এম এ রব মিন্টুর অনুমোদনক্রমে সাবেক সভাপতি জনাব মোঃ ইদ্রিস ফরাজী ও সাবেক সাধারন সম্পাদক হাসান ইকবালকে ইতালী আওয়ামী লীগের প্রাথমিক সদস্য পদসহ সকল পর্যায়ের পদ থেকে বহিস্কার হরা হলো। আমনাদের এই মর্মে সতর্ক হরা হচ্ছে যে, ভবিষ্যতে ইতালী আওয়ামী লীগের প্যাড ও কোন প্রকার পদ ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকবেন। অন্যথায় সাংগঠনিক পন্থায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। উল্ল্যেখ্য গত ৪অক্টোবর বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে আপনাদেরকে কারন দর্শানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল, আপনার কোন প্রকার সদুত্তর দিতে ব্যর্থ হওয়ায় ব্যবস্থা গ্রহন করা হলো। জি.আর মানিক দপ্তর সম্পাদক ইতালি আওয়ামী লীগ অভিযোগঃ ১. ইতালি আওয়ামী লীগ মেয়াদোত্তীর্ণ হয়ে গেছে প্রায় ৮ বছর। ২. অসাংগঠনিকভাবে দলের পদ বন্টন। ৩. সাবেক সভাপতি জনাব ইদ্রিস ফরাজী জরুরী প্রয়োজন ব্যতিরেকে স্থায়ীভাবে দেশে অবস্থান করেন যার ফলে সাংগঠনে স্থবিরতা চলে এসেছে। ৪. নিয়ম বহির্ভুত ভাবে ব্যক্তি স্বার্থে, অনৈতিক সুবিধা গ্রহন করে শাখা কমিটি অনুমোদন প্রদান। ৫. সাবেক সাধারন সম্পাদকের নৈতিক স্খলন। ৬. সাবেক সভাপতির সিল স্বাক্ষর জাল করে শাখা কমিটির অনুমোদন। ৭. দলীয় সভাপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ২০১৮সালে ইতালী সফরকালে রোমে গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানের প্রবেশ কার্ড দেওয়ার বিনিময়ে মোটা অঙ্কের অর্থ আত্মসাত করেন সাবেক সাধারন সম্পাদক। ৮. দলীয় প্রধানের সংবর্ধনা মঞ্চে বক্তব্য দেওয়ার লোভ দেখিয়ে নেতাকর্মীদের কাছ থেকে উৎকোচ গ্রহন করেন সাবেক সাধারন সম্পাদক। ৯. ক্ষমতা কুক্ষিগত করার উদ্দেশ্যে দলের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টি করেন সাবেক সাধারন সম্পাদক। ১০. ইতালী আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদেকের পদে থেকে স্বাধিনতা বিরোধী চক্রের সাথে এক মঞ্চে উপবেশন ও তাদের বাড়িতে দাওয়াত খাওয়া। ১১. লিবিয়া থেকে আগত সমুদ্র পথে ইতালিতে আগত অসহায় প্রবাসীদের জিম্মি করে নতুন পার্সপোর্টের ফিঙ্গার কাটানোর কথা বলে বিপুল অর্থ আত্মসাত করেন সাবেক সাধারন সম্পাদক। ১২. ক্ষমতার অপব্যবহার করে নিজের ছোট ভাইকে দূতাবাসে চাকুরী পাইয়ে দেওয়া। অনুলিপিঃ ১. কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ। ২. বাংলাদেশ দূতাবাস, রোম, ইতালী। ৩. সর্ব ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগ।

Please Share This Post in Your Social Media










© AMS Media Limited
Developed by: AMS IT BD