গাইবান্ধায় সাঁওতাল হত্যার সুষ্ঠ তদন্তসহ সাত দফা দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন

শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ০১:১৬ অপরাহ্ন

News Headline :
স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভোলা সদর এসিল্যান্ডের অভিযান স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভোলায় ৪৯ জনকে জরিমানা ব্যারিষ্টার ইমন এবং সহধর্মীণীর করোনা মুক্তি কামনায় মধ্যনগরে দোয়া ও প্রার্থনা ভোলার ইলিশায় ৬ কেজি গাঁজাসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী আটক ভোলা পুলিশের আয়োজনে অগ্নি-নির্বাপণ কর্মশালা ও মহড়া অনুষ্ঠিত ভোলায় আদালতের গাড়ী চালক আলাউদ্দিনের বিরুদ্ধে ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে হয়রানি ও প্রতারণার অভিযোগ ভোলার আদালতে আরো একটি ডিজিটাল ডিসপ্লে বোর্ড স্থাপন ভোলায় নওজোয়ান ক্রীড়া চক্র ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত ভোলায় বিএনসিসি এর উদ্যোগে মাস্ক,লিফলেট ও শীত বস্ত্র বিতরণ ভোলায় জনপ্রিয়তার শীর্ষে উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন মনসুর

গাইবান্ধায় সাঁওতাল হত্যার সুষ্ঠ তদন্তসহ সাত দফা দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন

শেখ মোঃ সাইফুল ইসলাম, গাইবান্ধা:
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে সাঁওতাল হত্যার বিচার বাপদাদার জমি ফেরতসহ সাত দফা দাবীতে গত সোমবার দুপুরে গোবিন্দগঞ্জদিনাজপুর আঞ্চলিক সড়কের কাটামোড় এলাকায় প্রায় ঘন্টাব্যাপি মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে মাদারপুরজয়পুরপাড়া থেকে ব্যানার, ফেস্টুন লাল পতাকা হাতে শতশত নারীপুরুষ মিছিল নিয়ে মানববন্ধনে অংশ নেয়।


মানববন্ধন শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল গোবিন্দগঞ্জদিনাজপুর আঞ্চলিক সড়কসহ ইক্ষুখামারের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করেন। সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম ভূমি পুনরুদ্ধার সংগ্রাম কমিটি, জাতীয় আদিবাসী পরিষদ, আদিবাসী বাঙালী সংহতি পরিষদ বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি এই মানববন্ধন কর্মসূচীর আয়োজন করেন।


সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম ভূমি পুনরুদ্ধার সংগ্রাম কমিটির সভাপতি ডা. ফিলিমন বাস্কের সভাপতিত্বে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়
মানববন্ধে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি কমরেড তাজুল ইসলাম।
সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম ভূমি পুনরুদ্ধার সংগ্রাম কমিটির সাধারণ সম্পাদক জাফরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক স্বপন শেখ, সহসাংগঠনিক সম্পাদক সুফল হেমব্রম কোষাধ্যক্ষ গনেশ মুরমু, জাতীয় আদিবাসী পরিষদ সভাপতি রবিন্দ্রনাথ সরেণ, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা যুব উন্নয়ন শাখার সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান প্রমুখ।


বক্তারা বলেন, সাঁওতালদের বসতবাড়ী থেকে উচ্ছেদের নামে প্রশাসন যে নারকীয় তান্ডব চালিয়েছে তা ইতিহাস হয়ে থাকবে।
সেদিনের ঘটনাটি দেশ বিদেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে ফলাও হয়েছে।
সাঁওতাল হত্যার চার বছর পেরিয়ে গেলেও আজও কোনো আসামীকে গ্রেফতার করা হয়নি।


তদন্তের নামে প্রশাসন কালক্ষেপন করছে। ছাড়াও সরকারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়েছে তা আজও বাস্তবায়ন হয়নি। বক্তারা আরও বলেন, সাঁওতাল হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতদের অতিদ্রুত গ্রেফতার করা না হলে বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসূচি দেয়া হবে। সেইসাথে বাপদাদার জমি ফেরতেরও দাবী জানান তারা।


উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের নভেম্বর রংপুর চিনিকল কর্তৃপক্ষ পুলিশ নিয়ে সাহেবগঞ্জ ইক্ষুখামারে আখ কাটতে যান।
এসময় সাঁওতালরা বাপদাদার জমি দাবী করে আখ কাটতে বাঁধা দেন।
এতে চিনিকল শ্রমিক, পুলিশ সাঁওতালদের ত্রিমুখি সংঘর্ষ হয়।
পুলিশের গুলিতে নিহত হয় তিন সাঁওতাল। আহত হন উভয়পক্ষের প্রায় ৩০ জন।

Please Share This Post in Your Social Media











© AMS Media Limited
Developed by: AMS IT BD