ঈদ পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ার শঙ্কা

ঈদ পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ার শঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদক:

দেশজুড়ে করোনার প্রকোপ বাড়তে থাকায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটিও বাড়ানোর চিন্তা করছে শিক্ষা এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। এরই মধ্যে তিন দফায় ছুটি বাড়িয়ে আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে ১৫ এপ্রিল ছুটি শেষ হলেও সেদিন কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানই খুলে দেওয়ার কোনো চিন্তা সরকারের নেই।

সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছুটি বাড়িয়ে রমজান ও ঈদুল ফিতরের ছুটির সঙ্গে একীভূত করা হতে পারে। সে ক্ষেত্রে এপ্রিলের সঙ্গে সঙ্গে মে মাসজুড়েই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার কথা ভাবা হচ্ছে। যদিও এ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মাহবুব হোসেন সমকালকে বলেন, আমরা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি। আরও তো এক সপ্তাহ ছুটি আছে। করোনার প্রকোপ এভাবে বাড়তে থাকলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তো বন্ধ রাখতেই হবে।

আর শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলও গত মঙ্গলবার তার ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কবে খুলবে সে সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি। ছুটি বাড়ানোর সিদ্ধান্তও হয়নি।

শিক্ষা নিয়ে কাজ করা সরকারের অপর মন্ত্রণালয় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম আল হোসেন বলেন, করোনার বর্তমান পরিস্থিতিতে স্কুলগুলো খুলে দিলে রীতিমতো ম্যাসাকার হবে। তাই অবস্থাদৃষ্টে যা করা উচিত, সেটিই করা হবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ালে আমরাও একই সঙ্গে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর ছুটি বাড়াব। এ নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানান সচিব।

বাংলাদেশে করোনার প্রাদুর্ভাব দেখা দেয় ৮ মার্চ। এরপর প্রথম দফায় গত ১৭ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এরপর আবার দ্বিতীয় দফায় ৯ এপ্রিল পর্যন্ত এবং সর্বশেষ তৃতীয় দফায় আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সময়সীমা বাড়ানো হয়।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বর্ষপঞ্জি অনুসারে রমজান, ঈদুল ফিতরসহ বেশকিছু ছুটি মিলিয়ে ২৫ এপ্রিল থেকে ৩০ মে পর্যন্ত ছুটি রয়েছে। এ ছাড়া করোনার কারণে দেওয়া বর্তমান ছুটির মধ্যে শবেবরাত, ইস্টার সানডে ও পহেলা বৈশাখের ছুটি রয়েছে। সাপ্তাহিক ছুটি ও সরকারি ছুটি বাদে ১৫ থেকে ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত মাত্র ছয় দিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রয়েছে। তাই করোনাভাইরাস রোধে এই পাঁচ দিনও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হতে পারে। পরিস্থিতির উন্নতি না হলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আগামী ঈদুল ফিতরের আগে আর খুলছে না বলে জানা যায়।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. ফসিউল্লাহ বলেন, ‘ছুটি বাড়ানোর বিষয়টি সক্রিয়ভাবে ভাবা হচ্ছে। আবার শিশুরা যাতে বাড়িতে পড়ালেখা অব্যাহত রাখে সে ব্যাপারেও নানা পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ২৫ এপ্রিল থেকে পবিত্র রমজান মাস শুরু হবে। সেই হিসেবে রমজান শুরুর দিন পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হবে। তারপর শুরু হবে রমজানের ছুটি। ফলে কার্যত সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে রমজানের ঈদের ছুটির পর।

সেরা নিউজ/আকিব

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© AMS Media Limited
কারিগরি সহায়তা: Next Tech