সমৃদ্ধির ২৫ বছরে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি

সমৃদ্ধির ২৫ বছরে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি

মনজু আহমেদ, ডিআইইউ প্রতিনিধি:
ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি এদেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে অন্যতম শীর্ষস্থানীয় একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। বর্তমানে শতাধিক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে মাত্র হাতে-গোনা কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয় তাদের স্থায়ী ক্যাম্পাস স্থাপন করতে পেরেছে। তার মধ্যে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অন্যতম। ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাস এক একরের অধিক জায়গার উপর অবস্থিত। বর্তমানে পার্মানেন্ট ক্যাম্পাসে চারটি ডিপার্টমেন্টের একাডেমিক কার্যক্রম চলছে। বিভাগ গুলোর মধ্যে ইংরেজি, সমাজবিজ্ঞান, ফার্মেসি ও সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং অন্যতম। পার্মানেন্ট ক্যাম্পাসে সবুজে ঘেরা এক মনোরম পরিবেশ তৈরি করা হয়েছে। একে গ্রীন ক্যাম্পাস বললে অত্যুক্তি হবে না।
উল্লেখ্য, ১৯৯৫ সালের ৭ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের সাবেক অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান মরহুম প্রফেসর ডঃ এবিএম মফিজুল ইসলাম পাটোয়ারী। তিনি বাংলাদেশের একজন প্রথিতযশা আইনের লেখক ও মানবাধিকার বিজ্ঞানী ছিলেন। প্রফেসর ডঃ পাটোয়ারী তার জীবদ্দশায় ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি সহ তিনি রংপুর ও গাইবান্ধা জেলাতে বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করেন।
বর্তমান বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি এবং ভাইস চেয়ারম্যান ডাক্তার শহীদুল কাদির পাটোয়ারী এর দক্ষতায় এগিয়ে চলেছে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। এছাড়া ট্রাস্টি বোর্ডের অন্যতম সদস্য এ্যাডভোকেট শাহেদ কামাল পাটোয়ারী বিশ্ববিদ্যালয়টির উন্নয়নে ভূমিকা রাখছেন।
এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে কর্মরত আছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের প্রাক্তন অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান প্রফেসর ডঃ কে এম মহসীন এবং ট্রেজারার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সাবেক অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান প্রফেসর ডঃ মইনুল ইসলাম। বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের চারটি অনুষদের অধীনে নয়টি বিভাগের কার্যক্রম সূচারুরূপে পরিচালিত হচ্ছে। প্রথম থেকে ষষ্ঠ কনভোকেশন পর্যন্ত প্রায় ২০ হাজার ছাত্র-ছাত্রী পাশ করে বেরিয়েছে। বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে ৬ হাজারের অধিক ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে।
ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে পাশ করা গ্রাজুয়েটরা দেশ-বিদেশের বিভিন্ন নামকরা অর্গানাইজেশনে সুনামের সাথে কাজ করে যাচ্ছেন। এই ইউনিভার্সিটির পাশকৃত গ্র্যাজুয়েটরা এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য অংশ হিসেবে বিসিএস এর বিভিন্ন ক্যাডারে কর্মরত। একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ঢাকা ইউনিভার্সিটির অভিজ্ঞ শিক্ষকেরা ছাত্র-ছাত্রীদেরকে যোগ্য নাগরিক হিসেবে তৈরি করছেন। ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ছাত্র-ছাত্রীরা শুধু একাডেমিক কার্যক্রমে নিজেদের মেধাকে সীমাবদ্ধ রাখেননি । বছরের বিভিন্ন সময়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ফুটবল টুর্নামেন্ট, ক্রিকেট টুর্নামেন্ট, কম্পিউটার প্রোগ্রামিং কম্পিটিশন, ইনডোর গেমস, ইন্টার্নেশনাল টুর ,ন্যাশনাল টুরের আয়োজন করছেন। ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ডিবেটিং ক্লাব ইতিমধ্যে বেশ কয়েকবার জাতীয় পর্যায়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছেন । ট্রাস্টি বোর্ডের বর্তমান চেয়ারম্যান শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি এর পৃষ্ঠপোষকতায় ক্লাবটিতে বেশ কয়েকজন আন্তর্জাতিক মানের বিতার্কিক তৈরি হয়েছে।
ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির বনানী, গ্রীন রোড এবং পার্মানেন্ট ক্যাম্পাস সাঁতারকুল বাড্ডা সহ, তিনটি লাইব্রেরীতে প্রায় ৫০ হাজারের অধিক বই রয়েছে। বছরে দুবার জার্নাল অব ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি প্রকাশিত হয়। তাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকগণ তাদের গবেষণামূলক আর্টিকেল প্রকাশ করে থাকেন। ইউনিভার্সিটি প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে ২৫ বছর সাফল্যের সাথে পার করেছে এরকম বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা হাতে গোনা মাত্র কয়েকটি। তার মধ্যে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অন্যতম।
প্রতিষ্ঠাতার স্বপ্ন ছিল ঢাকা ইন্টান্যাশনাল ইউনিভার্সিটি কে একটি বিশ্বমানের বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে গড়ে তোলার। এদেশের নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত শ্রেণীর ছাত্র ছাত্রীরা যেনো উচ্চ শিক্ষার সুযোগ পায় সেজন্য প্রতিষ্ঠাতা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ করেন। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আমরা তাকে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করি। অল্প কয়েকদিনের মধ্যেই ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি আয়োজন করতে যাচ্ছে সপ্তম কনভোকেশন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© AMS Media Limited
কারিগরি সহায়তা: Next Tech