ইতালী আওয়ামী লীগ সভাপতি ইদ্রিস ফরাজীর কর্মকান্ডে বিক্ষুব্ধ ইতালী প্রবাসী বাঙ্গালীরা

রবিবার, ০৯ অগাস্ট ২০২০, ০৮:৪২ অপরাহ্ন

ইতালী আওয়ামী লীগ সভাপতি ইদ্রিস ফরাজীর কর্মকান্ডে বিক্ষুব্ধ ইতালী প্রবাসী বাঙ্গালীরা

ইতালি প্রতিনিধি:
ইতালী আওয়ামী লীগ সভাপতি ইদ্রিস ফরাজীর অবিবেচনামূলক কর্মকান্ডে বিক্ষুব্ধ ইতালী প্রবাসীরা। করোনা ভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ ইতালীতে যখন মৃত্যুর সংখ্যা যখন সমস্ত রেকর্ড ভঙ্গ করেছে। দুই লক্ষাধিক বাংলাদেশী করোনা ভাইরাস আতঙ্কে অসহায়ভাবে কোয়ারেন্টাইনে আছে। প্রতিনিয়ত শত শত মানুষের মৃত্যুর সংবাদ গোটা বিশ্বকে আতঙ্কিত জিরে তুলছে। ঠিক তখনই ইতালী আওয়ামী লীগের সভাপতি সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রতিনিয়ত হাস্যোজ্বল ছবি শেয়ার করে যাচ্ছেন।

শুক্রবার তিনি ইউরোপ আওয়ামী লীগের সভাপতি এম নজরুল ইসলাম ও তার কিছু সাঙ্গপাঙ্গ নিয়ে গনভবনে প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাত এর জন্য যায়। উদ্দেশ্য ইতালী আওয়ামী লীগের কমিটির মেয়াদ আরও দুই বছর বাড়ানো। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর সাথে তাদের সাক্ষাত হয় না। উদ্দেশ্য ব্যার্থ হলে ঐদিন তার নিজ ফেসবুকে নজরুলের সাথে তার একটি হাস্যোজ্বল ছবি পোস্ট করেন। এই ছবি দেখে বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন ইতালী প্রবাসীরা। ইউরোপ প্রবাসী M A Farook Prince তার ফেসবুক ওয়ালে লিখেন। ইউরোপ থেকে এসে নির্লজ্বভাবে হাসিমুখে ছবি তুলে আপলোড দিয়ে জাতিকে লাঞ্চিত করেছেন। আমরা এমন ইউরোপীয় সস্তা আওয়ামী লীগ নেতাদের জন্য লজ্বিত। Shame Shame। এখানে শত শত প্রবাসীরা তার এহেন কর্মকান্ডের জন্য ছি ছি করে মন্তব্য করেছেন।

উল্লেখ্য ইতালী আওয়ামী লীগ সভাপতি করোনা ভাইরাস ইতালীতে শুরু হবার পরপরই স্বপরিবারে বাংলাদেশে চলে আসেন। যদিও তিনি বছরে মাত্র ১ মাস ইতালীতে থেকে সভাপতি পদ আকড়ে রেখেছেন। এছাড়া বিভিন্ন কর্মকান্ডে ইতালী আওয়ামী লীগের মধ্যে বিতর্কিত হয়ে পড়ায় সম্প্রতি সম্মেলন প্রস্ততি কমিটি গঠন করা হয়।  করোনা ভাইরাসের কারনে সম্মেলন পিছিয়ে এপ্রিল মাসে নির্ধারন করা হয়।

ইতালী আওয়ামী লীগ সভাপতি ইদ্রিস ফরাজী ইতালী প্রবাসীদের এমন দূর্যোগের ভিতর ও নেতাকর্মী প্রবাসীদের নূন্যতম যোগাযোগ পর্যন্ত করছে না। তার এমন অবিবেচনামূলক কর্মকান্ডের কারনে ইতালী প্রবাসীরা চরম ক্ষুব্ধ হয়েছে। অনেকে তাকে সভাপতি পদ ছেড়ে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

Please Share This Post in Your Social Media











© AMS Media Limited
Developed by: AMS IT BD