Connect with us

সারাদেশ

বরগুনায় আবারো প্রকাশ্যে যুবককে কুপিয়ে জখম

Published

on

খলিফা মাইনুল:
বরগুনায় সাবেক প্রেমিককে আবারো প্রকাশ্যে কুপিয়ে রক্তাক্ত করেছে বর্তমান সন্ত্রাসী প্রেমিক । বরগুনার ছনি সিনেমা হলের সামনে ফিল্মিষ্টাইলে তিনটি মোটর সাইকেল যোগে এসে সাবেক প্রেমিক মোঃ মিরাজ সিকদারকে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করেছে সন্ত্রাসীরা বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে ।

গত শনিবার (২৯ফ্রেব্রুয়ারি) বিকাল সাড়ে ৫ টায় নিজ বাসার গেটের একটু সামনে সিনেমা হলের নিকটে বসে পরিকল্পিত বাবে প্রকাশ্য দিবালোকে এই হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা । বর্তমানে সে শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে । আহত মিরাজ সিকদার পশ্চিম বরগুনার সদর রোড এলাকার মোঃ দুলাল সিকদারের ছেলে। জানা গেছে , আহত প্রেমিক মিরাজ দীর্ঘ দিন ধরে সদর থানাধীন ফুলতলা গ্রামের মোঃ ছগির খা এর মেয়ে রিপার সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়িত ছিলো। এদিকে কিছু দিন ধরে বখাটে বেল্লাল রিপাকে প্রেমের প্রস্তাব দেয় কিন্তু রিপা তাতে রাজি না হওয়া প্রতিনিয়ত বিরক্ত করতে থাকে । রিপাকে বেল্লালের বাড়ীর সামনে দিয়ে আসা-যাওয়া করতে হয় আর এই সুযোগ ব্যবহার করে প্রতিদিন অশ্লীল ভাষা ব্যবহার করে বিরক্ত করতে থাকে ।

 

এ কথা মিরাজ জানতে পারলে বখাটে বেল্লাল কে ডেকে বুঝিয়ে বলে এবং এমন খারাপ কাজ থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দেয় কিন্তু তাতে এ সন্ত্রাসী আরো ক্ষিপ্ত হয়ে গালিগালাজ করে চলে যায়। এ নিয়ে উভয়ের সাথে দ্বন্দ্ব বিরাজমান ছিলো। এই সন্ত্রাসী প্রেমিক হলো ওই থানার লাকুতলা গ্রামের রফিকের ছেলে। আহত মিরাজ জানান , ঘটনার দিন আসরের নামাজ শেষ করে বাড়িতে ফিরছিলাম যখন ছনি সিনেমার সামনে থেকে যাই তখনি বখাটে সন্ত্রাসী বেল্লাল ও তার নেতৃত্বে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী বাবু , সোহেল ,রুহুল সহ অজ্ঞাত ৭/৮ জন সন্ত্রাসী মোটর সাইকেল করে দেশীও অস্ত্র রামদা, ছুরি , চাপাতি ও লাঠিসোটা নিয়ে পরিকল্পিত ভাবে হত্যার উদ্দেশ্য প্রকাশ্যে এ হামলা চালায়। আহতের চিৎকার শুনে স্থানীয়রা ছুটে আসলে সন্ত্রাসীরা হত্যা করতে ব্যর্থ হয়ে কুপিয়ে রেখে পালিয়ে যায় ।

 

পরে আহতকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা বরগুনা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে কিন্তু রোগীর অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক হওয়ায় সেখানে থাকা কর্মরত চিকিৎসক তাকে তাতক্ষনিক বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে । এ নিয়ে বরগুনা সদর থানায় মামলা করার প্রস্তুতি চলছে বলে আহতের স্বজনরা আরো জানান ।

Continue Reading
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: