মাদক,সন্ত্রাস,ইভটিজিং মুক্ত সমাজ গড়তে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে-ওসি রবিউল হোসেন

বুধবার, ০৮ এপ্রিল ২০২০, ১১:৫৭ অপরাহ্ন

মাদক,সন্ত্রাস,ইভটিজিং মুক্ত সমাজ গড়তে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে-ওসি রবিউল হোসেন

ওবায়দুল কবির(সম্রাট):কয়রা (খুলনা)প্রতিনিধি:
-মুজিব বর্ষের অঙ্গিকার, পুলিশ হবে জনতার’-এ শ্লোগানকে সামনে নিয়ে গ্রামবাসীর সাথে আবারো মাদক, বাল্যবিয়ে, ইভটিজিং, চাঁদাবাজি, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী এক মতবিনিময় সভা করেছে কয়রা থানা অফিসার ইনচার্জ রবিউল হোসেন । মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারী ) সন্ধ্যায় উপজেলার বাগালী ইউনিয়নের ঘুগরাকাটি বাজারে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

 

অনুষ্ঠানে ২নং বাগালী ইউনিয়নের কমিউনিটি পুলিশিং এর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ নুর মোহাম্মদ সানার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কয়রা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রবিউল হোসেন । তিনি বলেন, মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ,বাল্যবিয়ে, ইভটিজিং ও চাঁদাবাজ কর্মকান্ডকে সকলে মিলে প্রতিহত করতে হবে। যার যার এলাকার ভালো-মন্দ সবকিছু এলাকার সকলে মিলেই ভাগ করে নিতে হবে। এলাকার মূল ক্ষমতাই হচ্ছে সাধারণ মানুষ।

 

এ সাধারণ মানুষকে সাথে নিয়ে অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে হবে। তবেই সমাজ থেকে মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দূর হবে। তিনি আরো বলেন, অপরাধী যেই হোক না কেনো, তাকে একবিন্দুও ছাড় দেয়া হবে না, আইনের কাছে সকলেই সমান। ইভটিজার, মাদকাসক্ত, জঙ্গি ও সন্ত্রাসীদের চিহ্নিত করে আইনের কাছে সমর্পণ করতে হবে। ছেলে মেয়েদের স্কুলে পাঠিয়ে সবসময় খোঁজখবর রাখতে হবে। যে সব ছেলে ইভটিজিং করে, মাদকের সাথে জড়িত রয়েছে তাদের তালিকা প্রশাসনের কাছে দেবেন।

 

তথ্য প্রদানকারীর পরিচয় গোপন রাখা হবে। যে সব ছেলে ইভটিজিং করে তাদের অভিভাবকদের তলব করা হবে সন্তানদের সচেতন করার জন্যে। একটি ঘটনার জন্যে যেনো আরেকটি ঘটনার সৃষ্টি না হয় সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে। তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বার বার বলেছেন পুলিশ বাহিনীকে অবশ্যই কমিউনিটি পুলিশিংকে সাথে নিয়ে কাজ করতে হবে। সমাজ থেকে অন্যায় অনিয়মের ব্যাধিগুলো রোধ করতে কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সদস্যরা ভূমিকা রাখবেন।

 

তাদেরকে সাথে নিয়ে কাজ করলে সমাজ থেকে মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ অতি দ্রুত দূর করা সম্ভব হবে। এলাকাকে মাদক ও ইভটিজিংমুক্ত করতে সকলকেই দায়িত্ব নিতে হবে। কারা এলাকায় মাদক বিক্রি করে, ইভটিজিং করে তাদেরকে আমরা সকলেই চিনি, তাদেরকে এখন থেকেই সতর্ক হতে হবে।তিনি অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনার সন্তানরা কার সাথে চলাফেরা করে কোথায় যায় সেদিকে খেয়াল রাখবেন। মাদকাসক্ত ছেলেমেয়ে জ্ঞানশূন্য হয়ে পড়ে।

 

মাদকের ভয়াবহ অবস্থা থেকে সমাজকে বাঁচাতে হবে। মাদক ও জঙ্গিদের সম্পর্কে আমাদের অনেক সচেতন হতে হবে। একটি সুন্দর সমাজ গড়তে এবং দেশকে উন্নয়নের দিকে এগিয়ে নিতে সকলে মিলে কাজ করতে হবে। সামাজিক অবস্থার উন্নতি করতে হলে আমাদের প্রত্যেককে সচেতন হতে হবে এবং সকল গর্হিত কাজকে পরিহার করতে হবে।

 

আমরা সকলে মিলেই একটি সুন্দর কয়রা উপজেলা গড়বো। সভায় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক জাফরুল ইসলাম পাড়,ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশিং এর সদস্য সচিব রবিউল ইসলাম পাড়, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম, ইউপি সদস্য সোহরাব আলী শিকারী, আওয়ামীলীগ নেতা ইকবাল হোসেন সানা ,এস আই আব্দুল মজিদ,এএস আই সাইফুল, এএসআই আবু সুফিয়ান, পুলিশিং কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, ব্যবসায়ী, পেশাজীবি ও শ্রমজীবীসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media










© AMS Media Limited
Developed by: AMS IT BD