বগুড়া শজিমেকের অধ্যক্ষ হলেন অধ্যাপক ডাঃ জুয়েল

বুধবার, ০৮ এপ্রিল ২০২০, ১১:৩৭ অপরাহ্ন

বগুড়া শজিমেকের অধ্যক্ষ হলেন অধ্যাপক ডাঃ জুয়েল

বগুড়া প্রতিনিধি:
বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) অধ্যক্ষ হিসাবে নিয়োগ পেয়েছেন অধ্যাপক ডাঃ রেজাউল আলম জুয়েল। এর আগে তিনি ওই কলেজে ২০১৪ সাল থেকে উপাধ্যক্ষ পদে কর্মরত ছিলেন। ১৩ ফেব্রুয়ারি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপণের বরাত দিয়ে অধ্যাপক ডাঃ জুয়েল অধ্যক্ষ হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

জানা যায়, গত ৩০ জানুয়ারি সদ্য বদলি হওয়া অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী বদলি হলে অধ্যক্ষের পদটি শূন্য হয়। অধ্যাপক ডাঃ মোহাম্মদ আলী বদলি হলে অধ্যাপক ডাঃ জুয়েল আবার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে ডাঃ জুয়েলের অধ্যাপক পদে পদোন্নতি হওয়ায় ভারপ্রাপ্ত থেকে পূর্নাঙ্গ অধ্যক্ষ হলেন।

 

অধ্যাপক ডাঃ রেজাউল আলম জুয়েল বগুড়ার মানুষের কাছে ‘ডাঃ জুয়েল’ হিসেবেই সর্বাধিক পরিচিত। বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলা সদরের দাহিলা গ্রামের বাসিন্দা মোঃ আব্দুল আজিজ সরকার এবং হাজেরা খাতুনের ৬ ছেলে-মেয়ের মধ্যে দ্বিতীয়। তিনি শিবগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৯৮৩ সালে এসএসসি পাস করেন।

 

১৯৮৫ সালে তিনি রাজশাহী কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিকে উত্তীর্ণ হয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজে ভর্তি হন। ১৯৯২ সালে তিনি এমবিবিএস ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৯৫ সালের ১৫ নভেম্বর তিনি বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে যোগদান করেন। চাকরিরত অবস্থাতেই তিনি ২০০৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থোপেডিক্সে এমএস ডিগ্রি অর্জন করেন। তার প্রায় দুই বছর পর ২০০৯ সালের মার্চে তিনি বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজে যোগদান করেন।

 

 

তারও ছয় বছর পর ২০১৪ সালের মার্চে তিনি ওই কলেজের উপাধ্যক্ষ নিযুক্ত হন। অধ্যাপক ডাঃ রেজাউল আলম জুয়েল চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি সমানতালে চিকিৎসকদের নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন। তিনি বর্তমানে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) বগুড়া শাখার সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। একই সঙ্গে তিনি স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) বগুড়া শাখারও সাধারণ সম্পাদক।

 

নতুন দায়িত্ব পাওয়ার পর তাৎক্ষণিক এক প্রতিক্রিয়ায় অধ্যাপক ডাঃ রেজাউল আলম জুয়েল এ প্রতিবেদক-কে বলেন, তিনি শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজে যোগদানের পর থেকে সবাইকে নিয়ে কলেজের পড়ালেখা এবং হাসপাতালের চিকিৎসা সেবার উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি বলেন, এখন অধ্যক্ষ হিসেবে আমার দায়িত্ব আরও বেড়েছে। আমি প্রতিষ্ঠানটিকে দেশের সেরা প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টা করে যাব। এক্ষেত্রে সবার সহযোগিতা কামনা করছি। আশাকারি অতীতের মত সকলের সহযোগিতা পাব।

Please Share This Post in Your Social Media










© AMS Media Limited
Developed by: AMS IT BD