প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে শিক্ষকসহ ৪ জনকে কারাদণ্ড

বৃহস্পতিবার, ১৬ Jul ২০২০, ০৬:৫৮ পূর্বাহ্ন

প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে শিক্ষকসহ ৪ জনকে কারাদণ্ড

মো: হাচিবুর রহমান, (কালিয়া)নড়াইল প্রতিনিধি:

নড়াইলের কালিয়া উপজেলায় গনিত পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে শিক্ষক,কম্পিউটার দোকানি সহ ৪ জনকে আটক করে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে প্রত্যেককে ১ মাস করে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।
আজ মঙ্গলবার সকালে পরীক্ষা চলাকালে বড়দিয়া মুন্সি মানিক মিয়া ডিগ্রী কলেজ কেন্দ্র-সংলগ্ন একটি কম্পিউটার দোকান থেকে গনিত প্রশ্নপত্র মোবাইল ও হার্ডডিক্স সহ তাঁদের আটক করা হয়। প্রশ্নপত্র ফাঁস করে পরীক্ষা কেন্দ্রে সরবরাহ করতে পারে—এমন সন্দেহে ওই ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। এ সময় তাঁদের কাছ থেকে গনিত প্রশ্নপত্র, মোবাইল কম্পিউটারের হার্ডডিক্স উদ্ধার করা হয়।
আটক ব্যক্তিরা হলেন বড়দিয়া বহুমূখি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আশিকুজ্জামান (৩৪), বড়দিয়া স্পিট কম্পিউটার দোকানের মালিক অসিত দাস (২৫) তার সহযোগি মিঠুন (২৪),শরজিৎ (২৫)
নাম গোপন রাখার শর্তে একজন শিক্ষক জানান, ভালো ফলাফল করানোর জন্য বিভিন্ন স্কুর মাদ্রাসার শিক্ষকেরা পরীক্ষা শুরু হওয়ার পর পাঁচ থেকে সাত মিনিটের মধ্যে কৌশলে কেন্দ্র থেকে প্রশ্নপত্র বাইরে নিয়ে আসেন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ের শিক্ষকদের দিয়ে তার উত্তর তৈরি করে আধা ঘণ্টার মধ্যে পরীক্ষা হলে শিক্ষার্থীদের সরবরাহ করেন। এ জন্য সবকিছু ম্যানেজ করার জন্য শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অর্থ আদায় করা হয়। আজ গনিত পত্র পরীক্ষা শুরু হওয়ার কিছু সময় পর প্রশ্নপত্র বাইরে নিয়ে আসেন তাঁরা।বড়দিয়া মুন্সী মানিক মিযা ডিগ্রী কলেজ -সংলগ্ন একটি কম্পিউটার দোকানে বসে তার উত্তর তৈরি করছিলেন তাঁরা। এ সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই ৪ জনকে আটক করে পুলিশ।
এ বিষয়ে বড়দিয়া মুন্সী মানিক মিয়া ডিগ্রী কলেজ কেন্দ্রের কেন্দ্রসচিব আসমা খাতুন বলেন,আমাদের মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় আমরা এ ব্যাপারে কিছু জানিনা। এ ব্যাপারে কালিয়া সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো: নাজিবুল আলম বলেন, আমরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ওই ৪ জনকে প্রশ্নপত্র ফাঁসের সন্দেহে আটক করেছি। পরে তাদের কে পাবলিক পরিক্ষা অপরাধ আইন (১৯৮০) ধারাতে দোষী প্রমানিত হওয়ায় তাদের কে ১মাস করে কারাদণ্ড দেয়া হয়।

Please Share This Post in Your Social Media










© AMS Media Limited
Developed by: AMS IT BD