সিরাজগঞ্জে শাহজাদপুরে ৪ মাস দলিল রেজিস্ট্রি বন্ধ থাকায় জনদুর্ভোগ চরমে!

সোমবার, ১০ অগাস্ট ২০২০, ১১:১০ পূর্বাহ্ন

News Headline :
তৃণমূল থেকে উঠে আশা জালাল উদ্দীন বেল্লাল টাঙ্গাইলে দীর্ঘস্থায়ী বন্যায় ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি লালমোহনে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন সরকার বিশ্বে মর্যাদার আসন ধরে রেখে দেশের উন্নয়ন অব্যাহত রেখেছে : সাংসদ বাবু  কয়রায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর জন্মদিন উপলক্ষে ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপন  যশোরে নিখোঁজ সেনা সদস্য নববধূসহ আটক কুড়িগ্রামের উলিপুরে চ্যানেল এস এর সাংবাদিকের ইন্তেকাল মান্দায় ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টা: আটক ১ গাইবান্ধা তিন আসনের সংসদ সদস্য বলেছেন স্বাধীনতা বিরোধীরা দেশকে নিয়ে নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ভোলায় দরিদ্র নারীদের মাঝে মুরগী ও খাঁচা বিতরন

সিরাজগঞ্জে শাহজাদপুরে ৪ মাস দলিল রেজিস্ট্রি বন্ধ থাকায় জনদুর্ভোগ চরমে!

সেলিম রেজা, সিরাজগঞ্জ:
সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে দীর্ঘ প্রায় ৪ মাস ধরে দলিল রেজিস্ট্রি বন্ধ থাকায় জনভোগান্তী চরমে পৌঁছেছে। পাশাপাশি শাহজাদপুর সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসে কর্মরত প্রায় আড়াই শতাধিক দলিল লেখক, নকল নবিশসহ সংশ্লিষ্টরা কর্মহীন হয়ে পড়ায় পরিবার পরিজন নিয়ে তারা মানবেতর দিনযাপন করছে। দেখার কেউ নেই। নেই কেউ জনভোগান্তী লাঘবেরও ! জানা গেছে, শাহজাদপুর উপজেলাটি উত্তরাঞ্চলের মধ্যে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ও ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা।

 

তাঁতশিল্প ও দুগ্ধশিল্পসমৃদ্ধ এ উপজেলা ১৩ টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত। প্রায় ৬ লাখ লোকের বসবাস এ উপজেলায়। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সিরাজগঞ্জ জেলাসদরসহ সকল উপজেলার মধ্যে সবচেয়ে বেশি দলিল রেজিস্ট্রি হয় শাহজাদপুর সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসে। এ অফিস প্রতিদিন প্রায় ৭০ থেকে ৮০ দলিল রেজিস্ট্রি হয়। অথচ গত ৪ মাস ধরে এ অফিসে সব ধরনের দলিল রেজিস্ট্রি বন্ধ শাহজাদপুর সাব-রেজিস্ট্রি অফিস বর্তমানে জনশূণ্য অফিসে পরিণত হয়েছে।

 

এতে দলিল লেখক, নকল নবিশসহ প্রায় ২’শ ৫০ জন কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। পরিবার পরিজনের জীবন জীবিকার প্রশ্নে বর্তমানে তারা চোখেমুখে রীতিমতো সর্ষের ফুল দেখছে। কর্ম ও আয় না থাকায় অনেকেই ঋণপানে জর্জরিত হয়ে পড়ছে। সব মিলিয়ে তাদের ভাগ্যাকাশে বিরাজ করছে কালো মেঘের ঘনঘটা। এদিকে, শাহজাদপুর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসকে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে প্রায় ৪ মাস পূর্বে বরখাস্ত করার পর থেকে পদটি শূণ্য হয়ে পড়ে। এরপর দীর্ঘ ৪ মাস অতিবাহিত হলেও জনদুর্ভোগ লাঘবে শূন্য ওই পদে নতুন কোন কর্মকর্তাকে পদায়ন না করায় দিনে দিনে ভোগান্তী আরও বাড়ছে। শাহজাদপুর দলিল লেখক সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুস সাত্তার, সাধারণ সম্পাদক মহির উদ্দিন, উপদেষ্টা আব্দুর রশিদ জানান, ‘প্রায় ৪ মাস ধরে শাহজাদপুর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে কোন দলিল রেজিস্ট্রি না হওয়ায় তারাসহ এলাকাবাসী চরম বিপাকে পড়েছেন।

 

অনেকেই জমি ক্রয়-বিক্রয় করতে না পেরে তীব্র ক্ষোভ আর চরম অসন্তোষ প্রকাশ করছেন। কবে নাগাদ এ দুরাবস্থা দূরীভূত হবে সে বিষয়েও কেউ কিছু বলতে পারছে না। জমিজমা বিক্রয় করতে না পেরে অনেকেই চরা সুদে টাকা ঋণ নিতে বাধ্য হচ্ছে। এ অফিসে দিনে প্রায় ৭০ থেকে ৮০ টি দলিল রেজিস্ট্রি না হওয়ায় সরকার সাময়িকভাবে বিপুল পরিমান রাজস্ব প্রাপ্তি থেকেও বঞ্চিত হচ্ছে। অনেকে নকল তুলতে না পেরে হাঁ-হুতাশ করছে। দলিল লেখক আলহাজ্ব মানিক হোসেন, হাচেন আলী, আজিজুল হক শিমুল, জাহিদ হোসেন, মোক্তার হোসেন, রফিকুল ইসলাম, মোশাররফ হোসেন, সজিব আহমেদসহ অনেকেই অভিযোগে জানান, ‘শাহজাদপুর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে লাইসেন্সপ্রাপ্ত ৯৫ জন দলিল লেখক, ৩৫ জন নকল নবিশসহ প্রায় ১’শ জন সহকারি দলিল লেখক রয়েছে। শাহজাদপুর গুরুত্বপূর্ণ ও ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা হওয়া সত্বেও গত ৪ মাস দলিল রেজিস্ট্রি বন্ধ থাকায় সংশ্লিষ্টরাসহ এলাকাবাসী চরম দুর্ভোগ-দুর্গতিতে পতিত হয়েছেন।

 

এ দুর্ভোগ লাঘবে অবিলম্বে সাব-রেজিস্টার পদে পদায়ন করতে সংশ্লিষ্টদের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারা। এ বিষয়ে শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা বলেন, ‘আমরা এ বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ও জেলা রেজিস্টারকে বারবার অবহিত করেছি। এখানে দলিল রেজিস্ট্রি ও নকল সরবরাহ বন্ধ থাকায় এলাকাবাসীকে চরম বিড়ম্বনা পোহাতে হচ্ছে। বিষয়টি দ্রুত সমাধান হওয়া প্রয়োজন, নতুবা এলাকাবাসীর ভোগান্তী ও দুর্ভোগ আর বাড়তেই থাকবে।

 

’ এ বিষয়ে সিরাজগঞ্জ জেলা রেজিস্ট্রার আবুল কালাম মো: মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, ‘পার টাইম অন্য কর্মকর্তা দিয়ে কাজ চালানোর পরিকল্পনা থাকলেও কোন কর্মকর্তা না থাকায় সেটিও সম্ভব হচ্ছে না। ইতিমধ্যেই উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে একাধিকার এ বিষয়ে অবহিত করা হয়েছে। তাদের তরফ থেকে বলা হয়েছে, ‘বিষয়টা দেখছি! অপরদিকে, উর্ধতন কর্তৃপক্ষের দেয়া আশ্বাসে চরম অসন্তোষ প্রকাশ করে এলাকাবাসী অবিলম্বে শাহজাদপুর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে সাব-রেজিস্ট্রার নিয়োগের জোর দাবি জানিয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media











© AMS Media Limited
Developed by: AMS IT BD