বগুড়ায় ভুল চিকিৎসায় শিশু পঙ্গু ডাক্তারের বিরুদ্ধে সমন

সোমবার, ১০ অগাস্ট ২০২০, ১১:১২ পূর্বাহ্ন

News Headline :
তৃণমূল থেকে উঠে আশা জালাল উদ্দীন বেল্লাল টাঙ্গাইলে দীর্ঘস্থায়ী বন্যায় ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি লালমোহনে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন সরকার বিশ্বে মর্যাদার আসন ধরে রেখে দেশের উন্নয়ন অব্যাহত রেখেছে : সাংসদ বাবু  কয়রায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর জন্মদিন উপলক্ষে ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপন  যশোরে নিখোঁজ সেনা সদস্য নববধূসহ আটক কুড়িগ্রামের উলিপুরে চ্যানেল এস এর সাংবাদিকের ইন্তেকাল মান্দায় ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টা: আটক ১ গাইবান্ধা তিন আসনের সংসদ সদস্য বলেছেন স্বাধীনতা বিরোধীরা দেশকে নিয়ে নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ভোলায় দরিদ্র নারীদের মাঝে মুরগী ও খাঁচা বিতরন

বগুড়ায় ভুল চিকিৎসায় শিশু পঙ্গু ডাক্তারের বিরুদ্ধে সমন

বগুড়ায় ভুল চিকিৎসায় তিন বছরের শিশুর ডান হাত পঙ্গু করে দেওয়ার অভিযোগে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ডাঃ আব্দুল্লাহ আল মূতীসহ চার ডাক্তারের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন আদালত। গত বৃহস্পতিবার এ ঘটনায় ওই শিশুর মা ফজিলাতুন্নেছা ফৌজিয়া বাদী হয়ে জেলা বগুড়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালতের বিচারক সুপ্রিয়া রহমান অভিযুক্ত চার ডাক্তারের আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি আদালতে হাজির হওয়ার জন্য সমন জারী করেছেন আদালত। অভিযুক্ত চার ডাক্তারেরা হলেন- শহরের কলোনি এলাকার হেলথ সিটি হসপিটালের ডাঃ লিমন, ডাঃ রেজওয়ান ও ডাঃ সাবিহা। পুরান বগুড়া এলাকার মোঃ মোমিনুর রহমানের স্ত্রী ফৌজিয়া মামলায় অভিযোগ করেছেন, গত বছর (২০ সেপ্টেম্বর) তার তিন বছরের পুত্র সন্তান ফাহিম মুবাশশির পড়ে গিয়ে ডান হাতের কনুইয়ের হাড় ভেঙ্গে যায়। প্রথমে ওই শিশুকে ডাঃ মহিউদ্দিন আসলাম কৌশিক কে দেখালে তিনি পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করানোর পরামর্শ দেন। পরে ফৌজিয়া তার এক আত্মীয়ের মাধ্যমে জানতে পারেন পঙ্গু হাসপাতালের ডাঃ মোঃ আব্দুল্লাহ আল মূতী (সূবর্ণ) বগুড়া পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারে রোগী দেখেন। গত ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ তারিখ বাদী তার পুত্র সন্তানকে ডাঃ আব্দুল্লাহ আল মূতীকে (সূবর্ণ) দেখালে তিনি ফাহিমের ভেঙ্গে যাওয়া হাড় ও রগের এক সঙ্গে অপারেশন করে ভালো হয়ে যাবে বলে আশ্বাস দেন। এরপর বাদী সরল বিশ্বাসে ওই ডাক্তারের কাছে ছেলের অপারেশন করান। অপারেশনের সময় ডাঃ আব্দুল্লাহ আল মূতী ও তার সহযোগী চিকিৎসরা ভিকটিমের ডান হাতের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ রক্তনালী কেটে ফেলেন। এর ফলে ফাহিমের হাতের অবস্থা খারাপ হতে থাকে। বর্তমানে তা আরও গুরুতর হয়ে হাতটি পঙ্গু হয়ে যায়। বাদী ফৌজিয়া এ প্রতিবেদক-কে বলেন, ডাক্তারেরাই আমার ছেলের পঙ্গু হওয়ার জন্য দায়ী। এ জন্য আসামিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জন্য বাদী মামলাটি দায়ের করেছেন। ডাঃ আব্দুল্লাহ আল মূতী (সূবর্ণ) এ প্রতিবেদক-কে বলেন, তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন।
জিএম মিজান

Please Share This Post in Your Social Media











© AMS Media Limited
Developed by: AMS IT BD