Dhaka Observer
শুক্রবার, রাত ৮:১০, ২৮শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ই রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী
প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত : ০১৭৬৬২৩৮৮১৭
জাতীয় | আন্তর্জাতিক | খেলাধুলা | বিনোদন | রাজনীতি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন |

ভুলে গেছি আবরার ফাহাদ

আপডেট : নভেম্বর, ১৯, ২০১৯, ৬:২৩ অপরাহ্ণ

149

ফাতেমা তুজ জোহরা :

আবরার, কিছুদিন আগে সবার মুখে মুখে যে নামটি ছিল। অনেকের ফেসবুক ঝড়ে যে ছিল সবার আগে। এখন কোথায় সে ? নিশ্চয়ই অনেক ভালো আছেন ওপারে।
অনেক কিছু করতে চেয়েছেন কিন্তু কিছুই হলো না।ইতিহাস গড়তে চেয়েছেন তা কী হয়েছে?

১৯৯৮সালে জন্ম নেওয়া ছেলেটির নাম আবরার ফাহাদ ।কেউ চিনতাম না তাকে। ০৬/১০/২০১৯ তারিখ সবাই চিনেছি।

আমরা অনেকে নেমেছি রাজপথে।অনেকে বলেছি চিরকাল থাকবেন আমাদের মাঝে। কিন্তু পৃথিবীর নিয়ম তো আর এটা নয়।সারাজীবন সব মনে রাখব।আর আমরা বাঙ্গালীরা তো কথাই নেই।একটা জিনিষ নিয়ে ১মাস এর বেশি ঘাটতে চাই না।আর পরের আপডেট তথ্য নিয়ে আবার ঘাটাঘাটি। আমাদের কমন ডায়লগ “past is past”। সারাজীবন শুনে আসছি।এখন আব্রার তো ভুলে গেছি।কোন একসময় সবার টাইমলাইন এ ছিল আবরার।এখন তা রঙিন ছবিতে পূরণ হয়েছে।সবার প্রফাইল থেকে মুছে গেছে” justice for abrer”.
হয়তো বুয়েটের ক্লাস আবার চলমান হয়েছে।কিন্তু EEE ডিপার্টমেন্ট এর ১টা সিট খালি আছে থাকবে হয়তো।

তখন হয়তো বন্ধুদের চোখে পানি আসবে আবার অনেকের বুক ফেটে কান্না আসবে।তারাও নিজেদের মানিয়ে নেবে ভবিষ্যৎ নিয়ে ভাববে,ভবিষ্যৎ জীবনের জন্য নিজেদের তৈরি করবে।রাতে সেই শেরে – ই-বাংলা হলের সব বাতিগুলো নিভে যাবে সবাই আঁধারে স্বপ্ন দেখবে ভবিষ্যৎ নিয়ে।আর সেই আঁধারে হারিয়ে যাবেন আবরার।হয়তো হল আবার ভরে উঠবে।ক্যান্টিন এ সবাই খেতে যাবে তখনও হয়তো একটা চেয়ার খালি পরে থাকবে।সময়ের পরিবর্তনে হয়তো খালি চেয়ারটি ও পূনর্তা পাবে।হয়তো পরবর্তী প্রজন্ম জানবেও না আবরার ফাহাদ নামে কোনো দেশেপ্রেমিক ছিল যে কিনা বুয়েটে শহিদ হয়েছে!সবার আড়াল হয়ে থাকবেন!পেপার এর কাগজগুলো ময়লার ঝুড়িতে স্থান পাবে।কিছু স্মৃতি বুয়েট হলে পরে থাকবে কেউ দেখবার সময়টুকু পাবে না।হলে যখন কোনো অনুষ্ঠান করবে আনন্দে হইচই করবে সম্পূর্ণ হল।কেউ শুনতে পাবে না মমার্ন্তিক চিৎকার।আনন্দ ধ্বনির সাথে হারিয়ে যাবে বুকফাটা আতর্নাদ।দেয়ালে আঁকা আর টানানো ছবি করো চোখে পড়বে না।ধুলো জমবে কেউ মুছে দিবার সময় হবে না।আবরারের ইতিহাস কে মনে রাখলো ?

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ঠিকই বলেছিলেন”বাংলায় কোনো বিদ্যাপীঠ তৈরিকরার প্রয়োজন নেই”
কারন তিনি জানতেন এরা যত শিক্ষিত হোক।অন্যর ক্ষতি করতেই হবে।
একমাএ জাতি হলো এরা যারা নিজেরা নিজেদের ধংস্স করতে প্রস্তুত।

সবাই ভুলে যাবে এটাই স্বাভাবিক।একটা মানুষ আপনাকে ভুলবে না তিনি হলো আপনার মা।আমি শুনেছি নারীর জীবনের সবর্চ্চো সুখ মা হওয়া।মা কোনোদিন সন্তানকে ভুলতে পারে না।মৃত্যুর আগ মুহূর্ত পর্যন্ত চোখ থেকে জল গড়াবে আপনার জন্য।

Editor & Publisher: Tania Mahmud
Head Office: 371/2, Mirpur-10, Dhaka-1216
Mobile: +8801766238817
Email: dhakaobserverbd@gmail.com

Maintenance By: AMS IT BD

শিরোনাম :
★★ মধ‍্যনগর থানা যুবলীগের উদ্যোগে ১৬ই ডিসেম্বর সফল করার লক্ষ্যে আলোচনা সভা ★★ মধ‍্যনগরে মটর শ্রমিক লীগের মটর সাইকেল শোডাউন ও স্ট্যান্ড উদ্ধোধন ★★ ইতালি বাংলা প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে সাংবাদিক সম্রাটকে সংবর্ধনা ★★ বরিশাল নগরীর হোটেল এরিনায় পুলিশের অভিযান ★★ বরিশাল জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ★★ বরগুনায় রাবিশ দিয়ে পাকা হচ্ছে সড়ক! ★★ বগুড়ায় র‌্যাবের অভিযানে নকল ঔষধ জব্দ গ্রেফতার-২ ★★ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে সম্মাননা প্রদান করলেন জেলা প্রশাসক ★★ বগুড়ায় হোটেল শ্রমিক ইউনিয়ন’র মানবন্ধন ★★ বগুড়ায় ২১ বিদ্যালয়ে নেই প্রধান শিক্ষক