উপজেলা ছাত্রলীগের প্রেস বিজ্ঞপ্তির পর জেলা ছাত্রলীগের পাল্টা প্রেস বিজ্ঞপ্তি

শুক্রবার, ০৫ Jun ২০২০, ০৭:১৪ অপরাহ্ন

উপজেলা ছাত্রলীগের প্রেস বিজ্ঞপ্তির পর জেলা ছাত্রলীগের পাল্টা প্রেস বিজ্ঞপ্তি

কয়রা প্রতিনিধি, প্রতিনিধি:

কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগ ও খুলনা জেলা ছাত্রলীগ গ্রুপিং এখন প্রকাশ্যে।উপজেলা ছাত্রলীগ সাংগঠনিক কোন বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিলে সেটার না মেনে বিরোধিতা করে পাল্টা ব্যবস্থায় যাচ্ছে জেলা ছাত্রলীগ। দু’সংগঠনের নেতা দের সম্পর্ক এখন আদায় কাঁচকলার মত। জানাযায়, ৩০ অক্টোবর ১৯ ইং সন্ধা ৭ টার দিকে কয়রা উপজেলার সকল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয় উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ শরিফুল ইসলাম টিংকু ও সাধারণ সম্পাদক এস এম হাদিউজ্জামান রাসেলের স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান,সংগঠনকে গতিশীল ও মডেল ছাত্রলীগ হিসাবে পরিণত করতে এ উপজেলার অধীনে ৭টি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়া ও কমিটির কোন কার্যক্রম না থাকার, কিছু কিছু নেতা কর্মির সংগঠন বিরোধী কর্মকান্ড,কেউ সাংসারিক জীবনে ধাবিত আবার কেউ কেউ চাকরি করার কারণে কমিটিগুলো বিলুপ্ত করা হয়েছে। কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি/ সম্পাদক স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তি দেয়ার প্রায় ২ ঘন্টা পর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পারভেজ হাওলাদার ও সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়। কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের উদ্দেশ্যে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম বাংলাদেশ ছাত্রলীগের তদন্তধীন থাকা অবস্থায় কোন কারণ ছাড়া সাতটি ইউনিয়ন কমিটি বিলুপ্ত ঘোষনা করা সম্পুন্ন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র পরিপন্থী। এমতবস্থায় কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকেরর বিরুদ্ধে কেন সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবেনা, এইমর্মে আগামি ৪৮ ঘন্টার মধ্যে স্বশরিরে উপস্থিত হয়ে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সম্পাদকের কাছে যেয়ে কারণ দর্শানোর জন্য বলা হল। অন্যথায় কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহন করবে জেলা ছাত্রলীগ। এবং কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগ কর্তৃক বিলুপ্ত ঘোষনা করা সাত ইউনিয়নের কমিটির কার্যক্রম পুনর্বহাল করেন জেলা ছাত্রলীগ। জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পারভেজ হাওলাদার বলেন কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগ সম্পর্কে আমাদের নতুন কোন বক্তব্য নেই। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আমাদের বক্তব্য স্পষ্ট। এ ব্যাপারে কয়রা উপজেলার ছাত্রলীগ সভাপতি মোঃ শরিফুল টিংকু বলেন, আমরা সংগঠনকে গতিশীল করতে ইউনিয়নের মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটি ও ইউনিয়ন কমিটির কোন কার্য়ক্রম না থাকায় বিলুপ্ত ঘোষনা করা হয়। জেলা কমিটি পাল্টা প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিছে কি না সেটা আমার জানা নেই।

Please Share This Post in Your Social Media










© AMS Media Limited
Developed by: AMS IT BD