ভোলায় সন্তানের সামনে মা’কে গণধর্ষণ

শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ০২:২০ পূর্বাহ্ন

News Headline :
কয়রায় পানিবন্দি লক্ষাধিক মানুষের খাদ্য ও বিশুদ্ধ পানির সংকট, পানিবাহিত রোগের প্রাদুর্ভাব বগুড়ায় নিখোঁজ রফিকুলের ১১ মাস পর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার গ্রেফতার ৪ শরণখোলায় সুন্দরবন থেকে লোকালয়ে আসা একটি হরিন উদ্ধার আওয়ামী লীগের ওয়েবসাইটে এমপি মুকুলের ত্রান বিতরন কার্যক্রম বোরহানউদ্দিন প্রশাসনের মানবতায় ঠাই পেলো শিশু সন্তানসহ মা নড়াইলের লোহাগড়ায় করোনা উপসর্গ নিয়ে এক যুবকের মৃত্যু থানায় ঢুকে পুলিশকে লাঞ্চিত করেছে আসামীর পিতা বগুড়ায় স্পিরিট পানে দুই বন্ধুর মৃত্যু বগুড়া সদরে করোনা রোগী সবচেয়ে বেশি ঘুর্ণিঝড় আম্পানে মোংলায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা

ভোলায় সন্তানের সামনে মা’কে গণধর্ষণ

ইয়াছিনুল ঈমন, ভোলা প্রতিনিধি:

ভোলার মনপুরা উপজেলায় শিশু সন্তানের সামনেই এক গৃহবধূকে গণধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় থানায় দায়ের করা মামলায় ছাত্রলীগ নেতাসহ ছয় যুবককে আসামি করা হয়েছে। গত ২৬ সেপ্টেম্বর শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার চর পিয়াল থেকে সন্তানসহ ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। ভুক্তভোগী গৃহবধূ চরফ্যাশন উপজেলার দক্ষিণ আইচা এলাকার বাসিন্দা। তাঁর দুই সন্তান রয়েছে। আসামিরা হলেন দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলাম (৩০), দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়নের রহমানপুর গ্রামের বেলাল পাটোয়ারী (৩৫), মো. রাসেদ পালোয়ান (২৫), শাহীন খান (২২), কিরণ (২৬) ও রিয়াজ (২৭)। মামলার বরাত দিয়ে মনপুরা থানার ভার প্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাখাওয়াত হোসেন বলেন, গত ২৬ সেপ্টেম্বর দুপুর সাড়ে ১২টায় চরফ্যাশন উপজেলায় বাবার বাড়ি থেকে মনপুরায় শ্বশুরবাড়ির উদ্দেশে রওনা দেন ওই গৃহবধূ। আড়াই বছরের শিশু সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে বেতুয়া লঞ্চঘাট হয়ে স্পিডবোটে করে যাচ্ছিলেন তিনি। এ সময় স্পিডবোটে থাকা যাত্রী বেলাল, রাসেদ, শাহীন, কিরণ, রিয়াজ জোরপূর্বক বোটটিকে পাশের চর পিয়ালে নিয়ে শিশু সন্তানের সামনেই তাঁকে গণধর্ষণ করে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়। মামলায় আরো বলা হয়, ‘পরে স্পিডবোটের মালিক দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলাম (৩০) আরেকটি স্পিডবোট নিয়ে চর পিয়াল গিয়ে ওই গৃহবধূকে আবারও ধর্ষণ করেন। নজরুল ধর্ষণের ভিডিও ধারণও করে এবং বিষয়টি নিয়ে কথা বললে ভিডিওটি ফেসবুকে ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দেন।’ ওসি সাখাওয়াত বলেন, ‘খবর পেয়ে গতকাল রাত সাড়ে ৮টায় চর পিয়াল থেকে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে মনপুরা থানায় নিয়ে আসি। ওই সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ধর্ষকরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় মনপুরা থানায় ছয়জনকে আসামি করে মামলা করা হয়েছে। ভুক্তভোগী নারী নিজেই বাদী হয়ে এ মামলা করেন। গতকাল রাত থেকেই আমরা আসামিদের ধরার জন্য অভিযান শুরু করেছি। যে কোনোভাবেই হোক তাদের গ্রেপ্তার করা হবে। সাকুচিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান অলি উল্লাহ কাজল জানান, চরে থাকা মহিষের বাথানিয়ারা ঘটনাটি তাঁকে প্রথমে জানান। পরে তিনি মনপুরা থানার ওসি সাখাওয়াত হোসেনকে জানান। ধর্ষণ মামলার আসামি নজরুল ২০১৫ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত তিন বছর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media










© AMS Media Limited
Developed by: AMS IT BD