কয়রায় বানভাসি মানুষের পাশে মানব কল্যাণ ইউনিট

মঙ্গলবার, ১৪ Jul ২০২০, ০৫:৩৭ পূর্বাহ্ন

কয়রায় বানভাসি মানুষের পাশে মানব কল্যাণ ইউনিট

ওবায়দুল কবির সম্রাট,কয়রা প্রতিনিধি:
স্মরণকালের ভয়াবহ সুপার সাইক্লোন ঘূ্র্ণিঝড় আম্পানে বেঁড়িবাধ ভেঙ্গে বন্যায় বিপর্যস্ত বাংলাদেশের সর্ব দক্ষিণে উপকূলীয় অঞ্চল খুলনার কয়রার জনজীবন। বিভিন্ন এলাকায় দেখা দিয়েছে বিশুদ্ধ পানি ও শুকনো খাবারের সংকট। এ অবস্থায় বানভাসি মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে সরকারী, বেসরকারি বিভিন্ন সংগঠনের পাশাপাশি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন মানব কল্যাণ ইউনিট।

তারা ত্রাণ তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে উপকূলীয় চরাঞ্চলসহ ক্ষতিগ্রস্ত বিভিন্ন এলাকায়। তার ধারাবাহীকতায় ৩০ মে মানব কল্যাণ ইউনিট এর উদ্যোগে গিভ বাংলাদেশের অর্থায়নে সোনামুখ খুলনার ব্যবস্থাপনায় আম্পানে বিধ্বস্ত বেঁধিবাধে স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে কাজ করা কয়েক হাজার মানুষের মাঝে শুকনা খাবার (৩ শত কেজি চিড়া ও ১শ কেজি মিষ্টি ) বিতরন করেন। মানব কল্যাণ ইউনিটের এমন মহতি উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে বানভাসি মানুষের পাশে সকল স্বেচ্ছাসেবী ও সামাজিক সংগঠনকে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন সচেতন মহলসহ সাধারন মানুষ ।

এ ব্যাপারে মানব কল্যাণ ইউনিটের সভাপতি আল আমিন ফরহাদ বলেন,আম্পানে পুরো কয়রা ৪টি ইউনিয়ন বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত। সরকার ও স্থানীয় সংসদ সদস্যের পাশাপাশি আমরা আমাদের সাধ্যমতে সহযোগিতার করার চেষ্টা করছি। এখানে আমরা নিরাপদ পানি, খাবার স্যালাইন, শুকনো খাবার দিচ্ছি।”এই সহযোগিতা একা কারো পক্ষে সম্ভব নয়। সকলে সম্বলিত প্রচেষ্টায় আমরা তাদের কিছু দুর্ভোগ লাঘব করতে পারবো।

তিনি আরও বলেন,আম্পানের দিন থেকে আমাদের স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু মহাদয় অসুস্থ অবস্থায় এলকায় অবস্থান করে জনগনের জনমাল রক্ষাসহ প্রাণপন চেষ্টা করে যাচ্ছে স্থায়ী বেড়ীবাধের জন্য,তিনি নিজে সর্বদায় মানুষের সুখ দুঃখে পাশে থাকেন , তিনি সকল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনেকে অসহায় মানুষের পাশে দাড়াতে উৎসাহিত করে যাচ্ছে, তার উৎসাহ অনুপ্রেরনা আমাদের কাজের গতি বৃদ্ধি করছে! গিভ বাংলাদেশ’কে অান্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি, তারা আমাদের এ দুঃসময় পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন”।দায়িত্ববোধ থেকে বানভাসি মানুষদের পাশে দাঁড়ানো দরকার বলে মনে করেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের এই সভাপতি।

Please Share This Post in Your Social Media










© AMS Media Limited
Developed by: AMS IT BD